আমাদের ব্লগ

আধুনিক ভারতবর্ষ প্রতিষ্ঠায় মুসলমানদের অবদান
পূর্বে ভারতবর্ষের পোষাক তৈরি হতো সাধারণত মোটা ও নিন্ম মানের কাপড় দিয়ে । মাহমূদ বাইগ্রাহ নামে (মৃ.১৫১১ ইসায়ী) নামে সমধিক পরিচিত ছিলেন । সুলতান মাহমূদ শাহ গুজরাটে বহু বস্ত্রের কারখানা স্থাপন করেন । এসব কারখানায় বুনন, রং করণ, ছাপা ও ডিজাইনের কাজ চলতো । এ ছাড়া তিনি কাগজ, রেশমী বস্ত্র, পাথর ও গজদন্ত দ্বারা বিভিন্ন দ্রব্য সামগ্রী তৈরির উদ্দেশ্য শিল্প কারখানা স্থাপন করেন ।
অগ্রসর ও গঠনমূলক মেধার অধিকারী সুলতান মাহমূদ গুজরাটী শিল্প, বানিজ্য ও কৃষি সেক্টরে কর্মরত জনগণের মনে অগ্রগতি ও সমৃদ্ধির একটি দূর্লভ উদ্দীপনার জন্ম দেন । ভারতে বিখ্যাত ইতিহাসবিদ মাওলানা সাইয়্যিদ আবদুল হাই ‘নূযহাতুল খাওয়াতির’ গ্রন্থে সুলতান মাহমূদ গুজরাটী সম্পর্কে লিখেন- ‘‘দেশের উন্নয়নে সুলতানের নজীর বিহীন অবদানের মধ্যে মসজিদ ও বিদ্যালয় নির্মাণ এবং কাগজ ও ঔষধী বৃক্ষের চাষ অন্তর্ভূক্ত । এসব কাজের জন্যে তিনি জনগণের মাঝে উদ্দীপনা সৃষ্টি করেন । সেচ সুবিধা নিশ্চিত করার জন্যে তিনি বিপুল পরিমানে কূপ ও খাল খনন করেন ।
ইরান ও তুর্কিস্থান হতে অনেক দক্ষ শিল্পী ও অভিজ্ঞ কারিগর এসে এখানে শিল্প কারখানা স্থাপন করেন । কূপ ও প্রস্রবন ধারার কল্যানে গুজরাট ভরে উঠে সবুজের কল্যানে গুজরাট ভরে উঠে সবুজের সমারোহে । বাড়ন্ত বাগান, নিবিড় বৃক্ষ এবং সুমিষ্ট ফল পর্যাপ্ত পরিমানে উৎপন্ন হতে থাকে । এছাড়া গুজরাট গুরুত্বপূর্ণ ব্যাবসা কেন্দ্র রূপে খ্যাতি লাভ করে । গুজরাট থেকে বিদেশেও বস্ত্র রপ্তানী হতো । এসকল কিছু ছিলে জনগণের কল্যাণ সাধনে সুলতান মাহমূদের নিরলস প্রয়াস ও ঐকান্তিক আগ্রহের বহিঃপ্রকাশ । পরবর্তীতে সম্রাট আকবরের সময় কাপড় তৈরির কারখানা গড়ে উঠে ভারতে সর্বত্র ।
সূত্র:
1. Conan, Michel (২০০৭)। Middle East Garden Traditions: Unity and Diversity : Questions, Methods and Resources in a Multicultural Perspective, Volume 31। Washington, D.C.: Dumbarton Oaks Research Library and Collection।
2. ↑ “Islam: Mughal Empire (1500s, 1600s)”
3. ↑ Morier 1812,
4. ↑ Rein Taagepera (সেপ্টেম্বর ১৯৯৭)। “Expansion and Contraction Patterns of Large Polities: Context for Russia”। International Studies Quarterly।
5. ↑ Turchin, Peter; Adams, Jonathan M.; Hall, Thomas D. (২০০৬)। “East–West Orientation of Historical Empires and Modern States”। Journal of World-Systems Research।
6. ↑ Colin McEvedy; Richard Jones (১৯৭৮)। Atlas of World Population History। New York: Facts on File।
7. ↑ Richards, James (২৬ জানুয়ারি ১৯৯৬)। The Mughal Empire। Cambridge University Press।
8. Jawaharlal Neheru, `The Discovery of India’