আমাদের ব্লগ

ফার্মাসিষ্ট এবং ডাক্তারি ডিগ্রির সূচনা হয়েছিল মুসলমানদের হাতে   
ফার্মাসিষ্ট এবং ডাক্তারি ডিগ্রির সূচনা হয়েছিল মুসলমানদের হাতে
ফার্মাসিষ্ট এবং ডাক্তারি ডিগ্রির সূচনা হয়েছিল মুসলমানদের হাতে

পূর্বে আরবীয় চিকিৎসকরা একই সময়ে দার্শনিক ও জ্ঞানবীর ছিলেন । ৬০০ সাল থেকেই আরবরা ঔষধের আরোগ্য বিষয়ক গবেষনায় অদ্ভুত সাফল্য লাভ করে । আরবরাই সর্বপ্রথম ঔষধ বিক্রেতার দোকান বা ফার্মেসী স্থাপন করে এবং ঔষধ সংমিশ্রণের বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করে যাকে বর্তমানে ফার্মাসিষ্ট ডিগ্রি বলা হয় । ইতিহাসের আলোকে আমরা দেখতে পাই যে, খলিফা আল মামুনের আমলেই ফার্মেসীর মালিকদের (ঔষধ মিশ্রণকারীদের) একটা পরিক্ষা পাশ করতে হতো । ঔষধ বিক্রতাদের মত চিকিৎসকগণকেও পরিক্ষার মাধ্যমে উত্তীর্ণ হওয়া লাগতো । একটা দূর্ঘণটনা ঘটার পর খলিফা আল মামুন ৯৩১ সালে একজন সুবিখ্যাত চিকিৎসককে আদেশ দেন যে, উক্ত চিকিৎসক বাকী চিকিৎসকদের পরিক্ষা করবেন এবং উপযুক্তদেরই সনদ দিবেন । যে সনদ দিয়ে তারা সাধারণ মানুষের চিকিৎসা করতে পারবে । এর বাইরে কেউ যদি চিকিৎসা দেয় তাহলে তাকে শস্তির প্রদান করা হবে । তৎকালীন এই পরিক্ষায় বাগদাদে ৮৬০ জনের উপর চিকিৎসক পাশ করেন । এর ফলে রাজধানী বাগদাদের জনগণ হাতুড়ে ডাক্তারদের ভুল চিকিৎসার হাত থেকে বেঁছে যায় ।

বর্তমান যে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ডাক্তারদের MBBS, FCPS, MD এসমস্থ ডিগ্রির সনদ দেয়া হয় তা মূলত খলিফা আল মামুনের ডাক্তারি সনদের আধুনিক রূপ । এছাড়াও বর্তমানে ফার্মেসি খুলতে গেলে যোগ্যতা স্বরূপ ৪বছর ডিপ্লোমা ডিগ্রি নিতে হয় এবং বিভিন্ন মেডিসিন আবিষ্কারের জন্যে ফার্মাসিষ্টদের যে ডিগ্রি নিতে হয় তাও  খলিফা আল মামুনের সময়ে প্রদানকৃত সনদের আধুনিক রূপ ।

সুতারাং মুসলমানদের কিছু নেই এটা মনে করে হিনমন্যতায় ভোগার কোন কারন নেই । আধুনিক বিশ্ব মুসলমানদের হাতেই তৈরি এবং আগামী বিশ্বের অগ্রগতিও মুসলমানদের হাতেই হবে । মুসলমানদের উচিত হবে অহেতুক সময় নষ্ট না করে জ্ঞান চর্চায় নিজেদের আত্মনিয়োগ করা ।

 

#IGSRC

 

তথ্যসূত্র:

  1. History of the arabs: Philip k. Hitti
  2. The Wikipidia: The Free Encyclopedia .
  3. History of Arabs: Professor dr. Siyeed Mahmudul Hassan