আমাদের ব্লগ

বাঙ্গালী চিকিৎসাবিদ মুহম্মদ আল মাহাদীর ‘রহমা ফিততীব ওয়াল হিকমাহ’ ছিল ইবনে সিনার ‘কানুনের’ অনুরূপ।

বাঙ্গালী চিকিৎসাবিদ মুহম্মদ আল মাহাদীর ‘রহমা ফিততীব ওয়াল হিকমাহ’ গ্রন্থটি ৫টি খন্ডে বিভক্ত ছিল । যেগুলোতে যথাক্রমে-

(১) পদার্থ বিদ্যা,
(২)খাদ্যবস্তু ও ঔষধ,
(৪) স্বাস্থ্য,
(৪)শরীরের বিভিন্ন অংশের রোগ এবং
(৫) সাধারণ রোগ সম্পর্কে আলোচনা করা হয়েছে।

মুহম্মদ আল মাহাদীর ‘রহমা ফিততীব ওয়াল হিকমাহ’ গ্রন্থটি কায়রোতে ১৩০০, ১৩০২, ১৩০৪ হিজরীতে মুদ্রিত হয়। শেষোক্ত সংরক্ষণে ‘তিব্বুন নবী’ নামে একটি একটি খন্ডও যোগ করা হয়। এই গ্রন্থটি Prof. Florian Pharanon কর্তৃক ফরাসী ভাষায় অনুদিত হয়।

তবে সারটন পূর্বে মিথ্যাচারিতা করে থেমে থাকেনি, সে আরও একধাপ এগিয়ে। সারটন তার Introduction to the history of science (vol. 111, part-2. Page-1215) গ্রন্থে লিখেছে – “He Wrote Kitab Al-Rahma Fill-Tibb wal Hikmah (Book of Mercy concerning Medicine and Wishdom. It was Wrongly ascribed to the Egyptian polygraph al-suyuti .” সারটনের শেষের এই বক্তব্য ঠিক নয়, সম্পূ্র্ণ মিথ্যা এবং পরিকল্পিত ভাবে বিকৃত। অথচ জালাল উদ্দিন সূয়ুতীর রহমতুল্লাহি আলাইহিরও রহমা ফিততীব ওয়াল হিকমাহ নামে আলাদা একটি গ্রন্থ আছে।
এ সময় বিখ্যাত গবেষক তুর্কির মুহম্মদ আল আকসারাই (মৃত-১৩৬৮/৭৮ ইসায়ী), ইসহাক বিন মুরাদ, মুহম্মদ ইবনে মাহমুদ, হাজী পাশা (মৃত-১৪১৭ ইসায়ী), ‘রহমা ফিততীব ওয়াল হিকমাহ’ গ্রন্থকে চিকিৎসা বিজ্ঞানের একটি বিশ্বকোষ হিসেবে অবিহিত করেছেন। অনেকটা চিকিৎসা বিজ্ঞানের জনক ইবনে সিনার ‘কানুনের’ অনুরূপ হিসেবে।

পরিশেষে ইতিহাসের পাতায় চোখ রাখলে দেখা যাবে যে হাজারও মুসলিম বিজ্ঞানীদের বিস্ময়কর আবিষ্কার ও গবেষণা গুলো পরিকল্পিত ভাবে বিকৃত করা হয়েছে! অনেক ক্ষেত্রে তা অন্যদের নামে চালিয়ে দেয়া হয়েছে। কিন্তু সত্য কখনও চাপা থাকেনা সেটা পাথর ফুড়ে বেরিয়ে আসবেই। IGSRC টিম সেই সত্যকেই বিশ্ববাসীর সামনে তুলে ধরবে ইনশাআল্লাহ ! শত সহস্র বাধা আসবে সেগুলো পাশে সরিয়ে দিয়ে সামনের এগিয়ে যেতে আপনাদের সহযোগিতা আমাদের একান্ত কাম্য।

#IGSRC

সূত্র:
(5) The Enclyclopaedia of Islam
(6) The Enclyclopaedia of Britanica
(7) Biggane Musolmaner dan : M.Akbor Ali
(8 ) History of Muslim culture : k. ali